এবার মালয়েশিয়ায় জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিলো সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, শাপলা টিভিঃ
সাম্প্রতিক বক্তব্যের পর ক্ষমা চান নির্বাসিত স্কলার ডাঃ জাকির নায়েক; তবুও ছেড়ে দেয়নি মাহাথির সরকার। প্রথমে সাতটি রাজ্যে নিষেধাজ্ঞা দিলেও এবার পুরো মালয়েশিয়া জুড়ে ডাঃ জাকির নায়েকের বক্তব্য প্রচারে নিষেধাজ্ঞা দিলো দেশটির সরকার।

সম্প্রতি জাকির নায়েক এক সভায় মন্তব্য করেছিলেন, ‘ভারতে সংখ্যালঘু মুসলমানদের চাইতে মালয়েশিয়ায় থাকা সংখ্যালঘু হিন্দুরা শতগুণ বেশি অধিকার পান।’ তিনি আরো বলেন, ‘মালয়েশিয়ার হিন্দুরা মাহাথির মোহাম্মদের চাইতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনেক বেশি সমর্থন করে।’

এই বিষয়ে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড.মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘ক্রমাগত রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে জাকির নায়েক সীমা লঙ্ঘন করেছেন।’

মাহাথিরের এমন বক্তব্যের পরপরই ক্ষমা চেয়ে জাকির নায়েক বলেন, ‘আমি সকলের কাছে ক্ষমা চাইছি। কেউ ভুল বুঝে মনে খারাপ কিছু মনে পুষে রাখবেন না।’

সাম্প্রদায়িক স্পর্শকাতর মন্তব্যের জন্য গতকাল সোমবার পুলিশ জাকির নায়েককে ১০ ঘণ্টা জেরা করে। এরপরই পুরো দেশে জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আসে। তবে মাহাথির সরকার এখনি জাকির নায়েককে দেশে পাঠাবে না; আরো কিছু বিষয় তারা পর্যবেক্ষণ করতে চায়।

ধারণা করা হচ্ছে, ডাঃ জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় নিজেকে নিরাপদ মনে না করলে আফ্রিকা মহাদেশের কোন এক দেশে স্থানান্তরিত হবেন; এক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকা তার পছন্দের তালিকায় রয়েছে বলে বিশ্বস্থ সূত্রে জানা যায়।

জাকির নায়েক ভারতীয় নাগরিক। নিজ দেশে নির্বাসিত হয়ে তিনি তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন।

Read Previous

১২দিনের ঈদ যাত্রায় নিহত ২৫৩; আহত ৯০৮

Read Next

পাক-ভারত লড়াইঃ ৬ ভারতীয় সেনা নিহত

Leave a Reply

Your email address will not be published.