অপপ্রচারের প্রতিবাদে দক্ষিণ আফ্রিকা কমিউনিটি নেতা মমিনুল হকের সংবাদ সম্মেলন

0
148

শাপলা টিভি রিপোর্টঃ
সম্প্রতি বিভিন্ন মিডিয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবাসী কমিউনিটি নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মমিনুল হক মমিনকে জড়িয়ে মিথ্যা, অসত্য ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

আজ (১৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় জোহানেসবার্গের ফোর্ডসবার্গের আল-মক্কা রেস্টুরেন্টে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কমিউনিটি নেতা মমিনুল হক মমিন। এসময় তিনি জানান, একটি কুচক্রিমহল তার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে পরিকল্পিতভাবে আদমব্যবসায়ীদের সাথে নাম নাম জড়িয়েছে। তিনি দৃঢ়কন্ঠে বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় আদম ব্যবসার সাথে তার সম্পৃক্ততার প্রমাণ করতে পারলে তিনি যে কোন শাস্তি মাথা পেতে নেবেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি নেতা রেজাউল করিম ফারুক, শফিকুল ইসলাম, মোশাররফ হোসাইন, আসাদ কামাল চঞ্চল, নাসির উদ্দিন, আব্দুল মতিন মোল্লা, জাকির হোসেন, রিয়াদ হোসেন রিকু, যুব নেতা অপু আহমেদ, আব্দুল খালেক, লিমন মোহাম্মদ, নোমান সরকার, সানোয়ার হোসেন তন্ময় প্রমুখ।

পাঠকদের উদ্দেশ্যে নিচে মমিনুল হক মমিনের লিখিত বক্তব্য তুলে ধরা হলো-

দক্ষিণ আফ্রিকায় বসবাসরত প্রিয় সাংবাদিক ও মিডিয়া কর্মীবৃন্দ,
সম্মানিত প্রবাসীবৃন্দ ও দেশবাসী
আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।

আমি মোঃ মমিনুল হক মমিন দীর্ঘ ২৮ বছর যাবত দক্ষিণ আফ্রিকায় বসবাস করে আসছি। আমি বিভিন্ন ব্যবসা সুনামের সাথে পরিচালনা করছি। ব্যবসায়ের পাশাপাশি আমি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে প্রবাসীদের সহযোগিতা করে আসছি। বর্তমানে আমি বাংলাদেশ পরিষদ অর্গানাইজেশনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন থেকে দায়িত্ব পালন করছি।
আমি অত্যন্ত দুঃখ ভারাকান্ত মন নিয়ে আপনাদের জানাচ্ছি যে, বিগত কয়েকদিন যাবত বিভিন্ন মিডিয়ায় আমার ব্যাপারে অসত্য ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করা হয়েছে। যা আমার ব্যক্তিগত, পারিবারিক, ব্যবসায়িক ও সামাজিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এবং সম্মানহানি ঘটছে। অথচ এরকম একটি বিষয়ের সাথে আমার দুরতম কোন সম্পর্ক নেই।

প্রিয় প্রবাসীবৃন্দ,
আপনাদের জ্ঞাতার্থে জানাতে চাই, বিগত কয়েকদিন পূর্বে দক্ষিণ আফ্রিকা আসার পথে কয়েকজন বাংলাদেশী ইথোপিয়ায় আটকে থাকা অবস্থায় একটি ভিডিও প্রচার হয়। যা সকল প্রবাসীর মতো আমাকেও ব্যথিত করেছে। আমি এসব প্রবাসীদের মারধরের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং তাদেরকে মারধর কিংবা আটকের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের বিরুদ্ধে স্থানীয় আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানাচ্ছি।
কিন্তু দুঃখ ও পরিতাপের বিষয় হলো, ইথিওপিয়ায় জিম্মিকৃত বাংলাদেশীদের নিউজ প্রচারের সময় আমার নামে কোন কোন মিডিয়া অযাচিত এবং অসত্য তথ্য প্রচার করেছে যা শুনে আমি ব্যথিত ও মর্মাহত হয়েছি। প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায়, মোকাররম নামে এক ব্যক্তি যে ইথিওপিয়া থেকে সাউথ আফ্রিকা এসেছে এবং সে এক সাংবাদিকের সাথে কথা বলার এক পর্যায়ে আমার নাম ব্যবহার করে। এই ঘটনায় আমি বিস্মিত হয়েছি। মোকাররম নামের ঐ ব্যক্তিকে আমি কোনভাবেই চিনি না এবং তার সাথে কোনদিন দেখা হয়নি। যতদুর জেনেছি, মোকাররম পরিচয়ধারী ব্যক্তি একজন যাত্রী হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকা এসে পৌছেছে। একজন নতুন প্রবাসীর সাথে আমার পরিচয় থাকার প্রশ্নই উঠে না।
যেহেতু আমি সামাজিক এবং ব্যবসায়িকভাবে পরিচিত, তাই এখানে একটি চক্র অসৎ উদ্দেশ্যে আমার নাম ব্যবহার করে সাংবাদিকের সাথে খারাপ ব্যবহার করে। যা সম্পুর্ণভাবে আমার অগোচরে এবং এ সম্পর্কে কিছুই জানি না।
এখানে সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, আমার নাম ব্যবহার করার পর সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক কোন তথ্য প্রমান কিংবা যাচাই বাছাই ছাড়া নিউজে প্রকাশের ফলে আমি মর্মাহত হয়েছি। অথচ এ বিষয়ে এসব মিডিয়া কর্মীরা আমার বক্তব্য জানার কিংবা আত্মপক্ষ সমর্থন করার প্রয়োজন বোধ করেন নি। যা সাংবাদিকতার নীতির পরিপন্থি বলে আমি জানি।

প্রিয় প্রবাসীবৃন্দ ও দেশবাসী,
আমি দ্যর্থহীন কন্ঠে বলতে চাই, আমি দক্ষিণ আফ্রিকায় আদম ব্যবসায়ের সাথে কখনো জড়িত ছিলাম না। সাম্প্রতি আমার নাম ব্যবহার করে অপপ্রচারে আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না এবং আমাকে ভুল বুঝবেন না।
আমি মমিনুল হক মমিন কোন আদম ব্যবসার সাথে জড়িত বলে কেউ প্রমাণ দিতে পারেন তাহলে আমি যে কোন শাস্তি মাথা পেতে নেবো।
পরিশেষে, আমি সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক ও মিডিয়াকর্মীদেরকে বলবো- আপনারা আমাকে নিয়ে ভুল ও মিথ্যা সংবাদ প্রত্যাহার করে আজকের সংবাদ সম্মেলনে আমার পঠিত বক্তব্য প্রচার করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ইতি,
আপনাদেরই ভাই
মমিনুল হক মমিন
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, জোহানেসবার্গ, দক্ষিণ আফ্রিকা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে