করোনা ও হৃদরোগে দক্ষিণ আফ্রিকায় একদিনের ব্যবধানে চার বাংলাদেশীর মৃত্যু

একদিনের ব্যবধানে চার বাংলাদেশীর মৃত্যুতে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া...

0
320
একদিনের ব্যবধানে চার বাংলাদেশীর মৃত্যুতে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া...

শাপলা টিভি রিপোর্টঃ
গত ২৪ঘন্টার কম সময়ের ব্যবধানে দক্ষিণ আফ্রিকায় চার বাংলাদেশীর মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজন করোনা আক্রান্ত হয়ে এবং দুইজন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

কুইন্সটাউনে হোসাইন নবীর মৃত্যু
দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্টার্ণকেপ প্রভিন্সের কুইন্স টাউনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হোসাইন নবী নামের এক বাংলাদেশী আজ (২১ জুন) সকালে ইন্তেকাল করেছেন। উনার দেশের বাড়ি কুমিল্লা জেলার সদর থানায় বলে জানা গেছে।
কিম্বার্লিতে কমল দাসের মৃত্যু-
হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার কিম্বার্লির দানিস্কুইল এলাকায় কমল দাস নামে এক হিন্দু ধর্মাবম্বী বাংলাদেশী মৃত্যুবরণ করেছেন।
আজ (২০ জুন) সন্ধ্যার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তার ব্যবসায়িক পার্টনার এ্যাম্বুলেন্স ডাকেন। এ্যাম্বুলেন্স টিম আসার পর অচেতন অবস্থায় পাওয়া কমল দাসকে মৃত ঘোষণা করেন।

কমল দাস ২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় আসেন এবং সম্প্রতি তিনি অংশীদারী হিসেবে গ্রোসারী ব্যবসা করেন। তার দেশের বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বড় শাখোয়া গ্রামে।
নিহত কমল দাসের লাশ দেশের বাড়িতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। স্থানীয় কমিউনিটি সহযোগিতায় ও সেইফ বাংলাদেশী সংগঠনের ব্যবস্থাপনায় দেশে পাঠানোর কার্যক্রম চলছে।

মাফিকিংয়ে আমীর হোসেনের ইন্তেকাল
দক্ষিণ আফ্রিকার নর্থ ওয়েস্ট প্রদেশের মাফিকিং হাসপাতলে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রবিবার শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন একই প্রদেশের জিরাষ্ট এলাকার ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আমির হোসেন।

জানা যায়, আমির হোসেন গত একসপ্তাহ আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে বাসায় চিকিৎসাধীন ছিলেন। অক্সিজেন লেভেল কমতে থাকায় প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় আমির হোসেনকে। ক্রমশ অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য আমির হোসেন কে মাফিকিং প্রাদেশিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
জন্মসূত্রে মাদারীপুরের বাসিন্দা হলেও নারায়ণগঞ্জে নতুন বাড়ি করে স্থায়ীভাবে বসবাস করতেন আমির হোসেন।

পুমালাঙ্গায় হাফিজুর রহমানের ইন্তেকাল
দক্ষিণ আফ্রিকার পুমালাঙ্গা প্রভিন্সের এরমেলো সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কমিউনিটি নেতা হাফিজুর রহমান মারা গেছেন, ইন্নালিল্লাহি….রাজিউন।

তিনি কয়েকদিন পূর্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। আইসিইউতে থাকা অবস্থায় গতরাতে [২০ জুন] রাত ১১টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুবরণকারী হাফিজুর রহমানের দেশের বাড়ি রংপুরের সদর উপজেলায় বলে জানা গেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আমস্টারডাম এলাকায় ব্যবসা বানিজ্য করে আসছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে