চট্টগ্রামের চান্দগাঁওয়ে মা ছেলে খুন

0
10

ডেস্ক রিপোর্ট ॥ চট্টগ্রামের চান্দগাঁও থানা এলাকায় মা ও ছেলে খুনের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থল থেকে দুটি পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে চান্দগাঁও থানা পুলিশ। নিহতের শরীর ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহতরা হলেন গুলনাহার বেগম (৩৩) ও তার শিশুপুত্র রিফাত (৮)। স্বামী পরিত্যক্তা গুলনাহারের ময়ূরী নামে ১৪ বছর বয়সী আরেকটি মেয়ে । গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে নগরীর চান্দগাঁও পাঠানিয়া গোদা এলাকার রমজান আলী সেরেস্তাদারের বাড়ির মহিউদ্দিনের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। নগর পুলিশের উপ-কমিশনার বিজয় বসাক বলেন, ‘দিনের যেকোন সময় মা ও শিশুপুত্রকে হত্যা করা হয়েছে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেছে।’ তিনি বলেন, ‘নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, কাচের প্লেট দিয়ে আঘাত করে তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নূরনাহার বেগমের ১৪ বছর বয়সী ময়ূরী প্রতিদিনের মতো সোমবারও গার্মেন্টে চাকরিতে যান। সন্ধ্যা ৭টায় বাসায় এসে দেখতে পান মা ও ভাইয়ের মরদেহ বাসার পড়ে রয়েছে।
নিহতের মেয়ে ময়ুরী বলেন, প্রতিদিনের মতো সকালে চাকরিতে যাই। সন্ধ্যায় এসে দেখি ঘরের বাথরুমে মায়ের ও রান্নাঘরে ভাইয়ের লাশ পড়ে রয়েছে।
পুলিশ সূত্র জানায়, নূরনাহার বেগম স্বামী পরিত্যক্তা মহিলা। এক ব্যক্তি তাকে বোন সম্বোধন করে প্রায়শই বাসায় যাতায়াত করেন। পুলিশ এখন তাকে খুঁজছে।
ঘর থেকে পুলিশ ভাঙা প্লে¬টের রক্তমাখা টুকরো উদ্ধার করেছে। নিহতদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। গলায়ও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, কাচের পে¬ট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে আঘাত করে তাদের হত্যা করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, ‘গুলনাহারের স্বামী আরেকজনকে বিয়ে করেছে। স্বামীর সঙ্গে থাকে না। গুলনাহার বাসায় ও হোটেলে রান্নার কাজ করে।
নিউজ৭১/জেএম

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে