দক্ষিণ আফ্রিকায় ভ্যাকসিন প্রয়োগে ধীরগতি থাকলে টার্গেট পুরণে লাগবে ১৮ বছর; বলছে গবেষণা

0
397

শাপলা টিভি রিপোর্টঃ

দক্ষিণ আফ্রিকায় ভ্যাকসিন প্রয়োগে ধীরগতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। সরকারের রোল-আউট প্ল্যানের আলোকে চলতি বছরের শেষ প্রান্তে এসে মোট জনসংখ্যার ৬৭% কে ভ্যাকসিন দেয়ার কথা রয়েছে।

কিন্তু ভ্যাকসিনের ধীর গতির কারণে তা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছে গবেষণা সংস্থা মিডিয়া হ্যাক কালেকটিভ। সংস্থাটি জানায়, ভ্যাকসিন শুরুর পর থেকে ১৩ মার্চ পর্যন্ত ১,৪৫,৫৪৪ জনকে ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে; যা গড়ে প্রতিদিন প্রায় ৬হাজার জন। এভাবে অতি অল্পসংখ্যক লোককে ভ্যাকসিন প্রদান করা হলে সরকারের ৬৭% টার্গেট পূরণ করতে ১৮বছরের বেশি সময় লাগবে।
তবে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে সরকারের টার্গেটকৃত ৫ কোটি জনগনের মাঝে ভ্যাকসিন প্রদান করতে হলে এখন থেকে প্রতিদিন ১,৪০,০০০ হাজার লোককে ভ্যাকসিন প্রদান করতে হবে।

ভ্যাকসিন নিয়ে হ্যাক কালেকটিভ-এর পরিসংখ্যান

সরকার গত ১৭ ফেব্রুয়ারী থেকে ভ্যাকসিনের রোল-আউট প্ল্যান শুরু করে। মার্চ মাসের মধ্যে ১.৫ মিলিয়ন ভ্যাকসিন প্রয়োগের কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত মাত্র দেড় লাখ প্রয়োগ করা হয়েছে। বাকী ১৫ দিনের মধ্যে দেড় মিলিয়নের টার্গেট পুরণ করতে হলে প্রতিদিন ৮২হাজার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করতে হবে। কিন্তু সরকারের হাতে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন নেই। গত শনিবার জনসন এন্ড জনসনের কাছ থেকে ৪০হাজার ভ্যাকসিন পাওয়া গেছে এবং চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে আরো ৪০হাজার পাওয়া যাবে।

প্রতিদিন ৬হাজার প্রয়োগে সময় লাগবে ১৮বছর; গবেষণা চার্ট

সরকার ইতিমধ্যে জনসন এন্ড জনসন, ফাইজার এবং কোভ্যাক্স এই তিন কোম্পানীর কাছে প্রায় ৪৩ মিলিয়ন ডোজ অর্ডার কনফার্ম করেছে। অর্ডার অনুযায়ী মার্চ মাসের শেষ দিকে জনসন এন্ড জনসন থেকে ৫লাখ এবং ফাইজার থেকে ৬ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাওয়ার আশা করছে দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে