ফটিকছড়িতে যুবলীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ আহত ১১ আটক ৪

0
10

ডেস্ক রিপোর্টঃ

ফটিকছড়ি উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নে যুবলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে অন্তত ১১ব্যক্তি গুরুত্বর আহত হয়েছে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় ৪ জনকে পুলিশ আটকও করেছে।
গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় এঘটনা ঘটে।

ঘটনার পাল্টা পাল্টি বিবরণে জানা জানায়, যুবলীগ নেতা মহিউদ্দিন গ্রুপের কর্মীরা শহিদুল্লাহ গ্রুপের এক কর্মীকে মারধর করে। খবর পেয়ে শহিদুল্লাহ গ্রুপ মহিউদ্দিন গ্রুপের উপর হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের ইদ্রিস ৫১), আমান উল্লাহ (৩০), বেনুরা বেগম (৭০),
জেসমিন আকতার (৩০), মিনা আকতার (২৬), নাজিম (৪০), নয়ন (২০), শহিদুল্লা (৪৫), ইসমাইল ( ২২), মনা (৩০), খতিজা বেগম (৭০) গুরুত্বর আহত হয়। আহতদের ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্র নিশ্চিত করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হামলার সময় উভয় পক্ষ ধারালো অস্ত্র, লাটি সোটা ও অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে। যুবলীগ নেতা মহিউদ্দিন ও শহিদুল্লাহ গ্রুপের মধ্যে এই এলাকাতে দীর্ঘদিন নানান বিষয়ে বিরোধ চলে আসছে।
এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. বাবুল আকতার বলেন, সুন্দরপুরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বেশ কজন আহত হয়েছে। পুলিশ তৎক্ষনাত খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৩/৪ জনকে আটক করেছে এবং আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ওই এলাকায় পুলিশ টহল জোরদার করা হয়েছে।

নিউজ৭১/জেএম

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে