কাল আন্তর্জাতিক আদালতে শুনানি; রোহিঙ্গা গণহত্যার তথ্য দিতে গাম্বিয়ার পাশে বাংলাদেশ

শাপলা টিভি ডেস্ক:
দীর্ঘ এক বছর পর ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস-এ রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি হবে আগামীকাল ১০ ডিসেম্বর। ওআইসি’র পক্ষ থেকে মামলার বাদী আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ার আইনজীবিরা নেদারল্যান্ডের হ্যাগে পৌছেছেন। তাদেরকে বিভিন্ন তথ্য দিয়ে সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিবের নেতৃত্বে ৩জন রোহিঙ্গা প্রতিনিধি সহ ২০ সদস্যের প্রতিনিধিদল হেগে পৌছেছেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন গণমাধ্যমকে বলেছেন, রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলার শুনানিতে মিয়ানমার যাতে মিথ্যা তথ্য দিতে না পারে, সেটা নিশ্চিত করার জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে মামলার বাদী গাম্বিয়াকে সহযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ।

আন্তর্জাতিক বিচার আদালত বা আইসিজে’তে রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলার শুনানিতে বাদী গাম্বিয়াকে তথ্য-উপাত্ত দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিবের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সোমবার দ্য হেগের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন।

বাংলাদেশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কানাডা এবং নেদারল্যান্ডসও সেই শুনানিতে গাম্বিয়াকে সহযোগিতা করবে।

১০ই ডিসেম্বর মঙ্গলবার তিনদিনের এই শুনানি শুরু হওয়ার কথা রয়েছে মিয়ানমারের পক্ষে এই শুনানির জন্য অং সান সু চি নিজেই দ্য হেগে গেছেন।

কূটনীতিক ছাড়াও প্রতিনিধি দলে আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞ এবং নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিকেও রাখা হয়েছে। ইসলামী দেশগুলোর জোট ওআইসি’র পক্ষে গাম্বিয়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগ এনে দ্যা হেগে’র আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মামলাটি করেছে গত ১১ই নভেম্বর। এখন এর শুনানিতে গাম্বিয়াকে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ।

আরাকান রাজ্যের রোহিঙ্গা শরনার্থীরা বাংলাদেশ আশ্রয় নিলেও অদ্যবধি তাদের ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে কার্যত কিছুই করছে না মিয়ানমার। বাংলাদেশ সরকার বারবার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা চাইলেও কার্যত তা আলোর মুখ দেখছে না। আগামীকালের শুনানির পর আদৌও কোন সমাধান আসবে কিনা তা এখনই বলা দুষ্কর।

0 Reviews

Write a Review

shaplatv

Read Previous

জোহানেসবার্গ শহরে অবস্থিত হাইকোর্ট থেকে ৫ আসামী পালিয়ে যাবার চেষ্টা; পুলিশের গুলিতে নিহত ১

Read Next

সেন্ট্রাল লন্ডনে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আক্তার সংবর্ধিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *